হুগলির কোন্নগর চটকল এলাকায় এক তরুণীকে ধর্ষনের অভিযোগ, ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ধর্ষন করা হয় তরুণীকে

Share this page

কোন্নগর চটকল এলাকায় এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে৷ জানা যায়, ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ফের গণধর্ষণ করা হয় তরুণীকে৷ এই ঘটনায় চার যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ নির্যাতিতা তরুণী দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী৷ জন্মদিনের পার্টির নাম করে গত পয়লা মার্চ ওই তরুণীকে ফ্ল্যাটে ডাকে দুই যুবক৷ তারপর তাকে কোল্ড ড্রিঙ্কসের সঙ্গে মাদক মিশিয়ে অবচেতন করে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ৷ এমনকি এই গোটা ঘটনার ভিডিও তুলে রাখা হয়৷ এরপর ওই ভিডিও দেখিয়েই মেয়েটিকে ফের গণধর্ষণ করা হয় বলে পরিবারের অভিযোগ৷ এখানেই শেষ নয়, পরে ওই ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়া হয়৷ এই ঘটনার পর শ্রীরামপুর মহিলা থানায় নির্যাতিতার পরিবার অভিযোগ জানায় ।

ঘটনার গুরুত্ব বুঝে চন্দননগর পুলিশ কমিশনার অর্ণব ঘোষ বৃহস্পতিবার সকালে শ্রীরামপুর মহিলা থানায় পৌঁছে যান। তদন্তকারীদের সঙ্গে কথা বলার পর কমিশনার জানালেন, বুধবার রাতে একটা অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷ অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছে। ইতিমধ্যেই চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ তিনি আরও জানালেন, “ভিডিওর কথা শুনেছি তবে এখনো সেটি হাতে পাইনি।”

ঘটনার খবর পোঁছায় কোন্নগর পুরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছে ৷ কোন্নগর পুরসভার চেয়ারম্যান স্বপন দাস বলেন, “পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। গতকাল অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ খুব দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছে। আইন আইনের পথে চলবে।”

হুগলি শ্রীরামপুর সাংগঠনিক সভাপতি স্নেহাশিস চক্রবর্তী বলেন, “পুলিশ এই ঘটনার ব্যাপারে সক্রিয় আছে৷ যারা অপরাধ করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। যারা অপরাধ করবে তারা কেউ ছাড়া পাবে না, সে যে দলেরই হোক। বেহালার ঘটনায়ও এক যুব তৃণমূল নেতা গ্রেফতার হয়েছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

bn Bengali
X